কারণ সম্ভবত আমি ব্যস্ত

পরীক্ষা আর দিন বিশেক পরেই। এমনিতে ছুটি চলছে তাই ভার্সিটি যাওয়া হয় না তেমন একটা। গত বৃহস্পতিবার প্রায় এক সপ্তাহ পর ভার্সিটি গেলাম। ভাবিনি তেমন কারও সাথে দেখা হবে। লাইব্রেরীর সামনে কাউকে না কাউকে পাওয়া যায় সে ভরসাতেই যাওয়া। তবে প্রথমে গিয়েই দেখি মাঠ পুরা ফাঁকা। ভার্সিটিতে গরমের বন্ধ চলছে তাই লাইব্রেরীর সামনের জমজমাট জায়গাতেও মানুষজন কম। বেলালের চায়ের দোকানের সামনে কিছু দেখা গেল আর লাইব্রেরীর সামনের টানা বারান্দায় আড্ডা দিচ্ছে কিছু। এই গরমে আবার হেটে হেটে বাসায় যেতে ইচ্ছে করে না তাই চুপচাপ বসে রইলাম প্রায় আধা ঘন্টা। অনেক কে ফোন দিলাম কিন্তু ভাগ্য খারাপ কেউ ফোন তুলল না। তবে কথায় আছে সবুরে মেওয়া ফলে তাই আধা ঘন্টা পরে দেখা গেল জনা দুয়েক পরিচিত মুখের।

এদের সাথে আড্ডা দিতে দিতেই এক বন্ধু এসে হাজির। ব্যাটা বলে চল কলা ভবন থেকে ঘুরে আসি। এই কথা সেই কথা বলতে বলতেই আমি রাজি হয়ে গেলাম। তবে আসল মজা হল কলা ভবনের সামনে। আস্তে আস্তে অনেকের দেখা পাওয়া গেল এই জায়গায়। আড্ডাও হয়ে গেল কয়েকটা জম্পেশ। সবাই অবশ্য এসেছে ব্যাগট্যাগ নিয়ে। সামনে পরীক্ষা তাই ব্যস্ত সবাই। নোট জোগাড় কর, তারপর তা উগড়ে দাও- এসবের জন্য তো একটা প্রস্তুতির দরকার তাই না। আমি অবশ্য এখনো অতটা ভাল ছাত্র হতে পারি নাই চুপচাপ বসে বসে অন্যদের কান্ড কীর্তি দেখি। নিজেকে নিজেই সান্তনা দিই এত দৌড়ের কিছু নাই এখন প্রায় দিন বাইশের মত সময় আছে (লিখতে বসে খেয়াল হল দিন বাইশ থেকে দুই বিয়োগ ইতিমধ্যে চলে গেছে)।

দুপুর বেলা যখন ভিড় আবার কমে এল, চলে গেল অনেকেই তখন একজন প্রশ্ন করল কিরে ব্যাটা নোটফোট ফটোকপি করবি না? আমি বললাম না, পরে একদিন দেখা যাবে। হতাশ ভংগীতে মাথা নাড়াতে নাড়াতে ব্যাটা আবার বলল বাসায় কি পড়স নাকি তাইলে? আমি হেসে হেসে বললাম আলবত না। আবার প্রশ্ন- পড়স না, ভার্সিটি আসস না তাইলে করস কি সারাদিন বাসায়? মনে মনে ভাবলাম, সত্যিই কি করি আমি? আসলে কিছুই না। কখনো গল্পের বই, মাঝে মাঝে টিভি, সিনেমা দেখা, ব্লগে ব্লগে ঘুরে বেড়ান এইসব করে বেড়াই রাত দুপুর অব্দি। তাই গম্ভীর মুখে উত্তর দিলাম- ভার্সিটি আসা হয় না দোস্ত কারণ সম্ভবত আমি ব্যস্ত 😀

Advertisements

10 thoughts on “কারণ সম্ভবত আমি ব্যস্ত

  1. আমি জানি তোর অনেক কাজ। তুই খুব ব্যস্ত মানুষ!! — সেইটাও জানি…
    গুরুত্বপূর্ণ আর দ্বায়িত্বশীল মানুষরা কাজের চাপে পড়াশোনার কাজ ঠিকমতন করার সময় পান না… 😀
    রাশেদ ভাই তাদেরই একজন, তাইনা স্যার 😀

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s